Header Ads

  • Breaking News

    জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি ও অনার্স পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তির আবেদন শুরু

    জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি ও অনার্স পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তির অর্থ পেতে আবেদন করুন

    জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি ও অনার্স পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তির অর্থ পেতে আবেদন করুন। ২০১৯-২০ অর্থবছরে থেকে সব ধরনের বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের টাকা জিটুপি পদ্ধতিতে অনলাইনে ইএফটির মাধ্যমে সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠানো হবে। তাই, কলেজগুলোকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক পাস ও স্নাতক সম্মান পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর।


    আগামী ২১ জুনের মধ্যে বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের তথ্য পাঠাতে হবে। এ সময় শিক্ষার্থীদের তথ্য পূরণ করে তালিকা শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠাতে বলা হয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলোকে।
    Nu-stipend-Notice 2020


    মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে বিষয়টি জানিয়ে চিঠি সব সরকারি বেসরকারি কলেজে পাঠানো হয়েছে।


    জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে নিয়মিত আধ্যয়নরত স্নাতক (পাস)এবং স্নাতক (সম্মান)পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে প্রকাশিত গেজেটে তালিকাভুক্ত মেধা ও সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের ২০১৯-২০ অর্থবছরে বৃত্তির অর্থ প্রাপ্তির আবেদন সংক্রান্ত।

    জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি ও অনার্স পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বৃত্তি পেতে আবেদন করুন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে নিয়মিত আধ্যয়নরত স্নাতক (পাস)এবং স্নাতক (সম্মান)পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে প্রকাশিত গেজেটে তালিকাভুক্ত মেধা ও সাধারণ বৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের ২০১৯-২০ অর্থবছরে বৃত্তির অর্থ প্রাপ্তির আবেদন সংক্রান্ত।


    NU Stipend Apply Online Link– http://103.48.16.248:8080/HSP-MIS/login?lang=en

    জানা গেছে, নির্ধারিত লিংকে প্রবেশ করে National University Honours- Degree 2019-20 অর্থবছরের স্নাতক পাস ও স্নাতক সম্মান পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে বৃত্তি পাওয়া শিক্ষার্থীদের তালিকায় তথ্য পূরণ করতে হবে। এসব প্রিন্ট করা সংশোধিত তালিকা প্রতিষ্ঠান প্রধান বা দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তার স্বাক্ষর ও সিল নিয়ে তার সফটকপি ইমেইলে (dshe.stipend.fl@gmail.com) পাঠাতে হবে প্রতিষ্ঠানগুলোকে।


    নির্দেশনায় বলা হয়, প্রতিষ্ঠান প্রধানের পাঠানো তালিকা অনুসারে বৃত্তির টাকা পাঠানোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। তাই, ভুল বা ত্রুটিপূর্ণ তথ্যের জন্য কোনো শিক্ষার্থী বৃত্তির টাকা পেতে দেরি হলে প্রতিষ্ঠান প্রধান দায়ী থাকবেন। এছাড়া পাঠ বিরতিতে থাকা শিক্ষার্থীদের তালিকা মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠানো যাবে না। স্বাক্ষর ও সিল ছাড়া তালিকা পাঠানো হলে তা বাতিল বলে গণ্য করা হবে।
    Nu-stipend-Notice 2020

    Nu-stipend-Notice 2020


    এছাড়া কারিগরি সহায়তার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের টেকনিক্যাল টিম এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের অর্থ বিভাগের এসপিএফএমএসপি প্রকল্পের টেকনিক্যাল টিমের সাথে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে প্রতিষ্ঠান প্রধানদের।

    কারা পাবে এ বছর উপবৃত্তি?
    তালিকা দেখুন Click Here
    বাংলাদেশের সকল চাকরির সার্কুলার সবার আগে পেতে আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন
    join

    1 comment: