Tuesday , October 19 2021

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স এর শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে বললেন শিক্ষামন্ত্রী

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স, বিভিন্ন কারিগরি প্রতিষ্ঠান ও পলিটেকনিকের ডিপ্লোমা শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা দেয়ার জন্য জোর প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, অনার্সের শিক্ষার্থীও কম। অপর দিকে কারিগরিরও কম। তাই সীমিত আকারে তাদের পরীক্ষা নেয়া যায় কিনা তা বিবেচনা করছি। যেহেতু এ পরীক্ষাগুলোর সাথে তাদের কর্মজীবন জড়িত, তাই পরীক্ষাগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানাবো তারা যেন পরীক্ষার জোর প্রস্তুতি নেন। অনার্সের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে ইতোমধ্যে আলোচনা শুরু হয়েছে।
রবিবার ১৫ নভেম্বর এক ভার্চুয়াল ইন্টারভিউয়ে বেসরকারী টেলিভিশন পক্ষ থেকে করা প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।

Dr. Dipu Moni
 Dr. Dipu Moni

 

মন্ত্রী বলেন, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের কেউ দাবি করছেন অটোপাস, কেই বিরোধীতা করছেন, আবার কেউ বলছেন আগের তিন বছরের পরীক্ষার ফল গড় করে নম্বর দিয়ে তাদের ফল প্রকাশ করা হোক। পরীক্ষা ছাড়া জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করা ঠিক হবে না। পরীক্ষার বিষয়ে জাতীয় বিশ্ববিদ্যায়ের সাথে আমরা কথা বলেছি।
ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেন, ‘আমরা পরীক্ষা নেয়ার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছি। পরীক্ষার মাধ্যমে আমরা প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার অনুশীলনটা শুরু করতে চাই।
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, কোন একভাবে মূল্যায়ন করেই শিক্ষার্থীদের এসএসসি পরীক্ষার জন্য শিক্ষার্থীদের নির্বাচন করা হবে। করোনা ভাইরাস থেকে শিক্ষার্থীদের সুরক্ষিত রাখতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় প্রাক নির্বাচনী বা নির্বাচনী পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয়নি। পরিস্থিতি বিবেচনায় নভেম্বরে কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার পরিকল্পনা আছে। সে সময় শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেয়া যেতে পারে। তাছাড়া নানাভাবে শিক্ষার্থীদের অ্যাসেসমেন্টের চেষ্টা চলছে। সার্বিক বিবেচনায় মূল্যায়ন করেই এসএসসি পরীক্ষার্থীদের নির্বাচন করা হবে।

শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটির মেয়াদ ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। ডিসেম্বর থেকে পরিস্থিতি বিবেচনায় কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সীমিত পরিসরে খোলা যায় কিনা সে বিষয়টিও বিবেচনায় রয়েছে।

তিনি বলেন, এবার অন্যান্য বছরের মতো বই উৎসব করা যাবে না। তবে, বিকল্প কিভাবে বইগুলো শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেয়া যায় তা ভাবছে মন্ত্রণালয়।

আগামী শিক্ষাবর্ষে স্কুলগুলোতে ভর্তির বিষয়ে পরীক্ষা হবে কি হবে না, হলে কিভাবে? এসব প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেছেন, পরিস্থিতি বিচেনায় সিদ্ধান্ত নেয়া হবে এবং যথাসময়ে সাংবাদিকদের জানিয়ে দেয়া হবে।

About Staff Reporter

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *